কালোজিরা ও মধুর উপকারিতাঃ


✅ ওজন কমায়ঃ – নিয়মিত মধু খেলে পাকস্থলীতে বাড়তি গ্লুকোজ তৈরি হয়। এই গ্লুকোজ মস্তিষ্কের সুগার লেভেল বাড়িয়ে দেয় ফলে মেদ কমানোর হরমোন নিঃসরণের জন্য বেশি মাত্রায় চাপ সৃষ্টি করে। ফলে মেদ কমে যায়।

✅ যৌন শক্তি বৃদ্ধিতেঃগোপন রোগ বা যৌন শক্তি বৃদ্ধিতে মধুর যেন বিকল্প নেই কেননা মধু এমনই একটা উপাদান। এছাড়া মধু সাধারণত প্রতিদিন এক গ্লাস গরম দুধের সাথে মধু মিশিয়ে খেলে যৌন শক্তিতে ভালো ফলাফল আসে। এছাড়া মধু খাওয়ার অনেক উপায় রয়েছে যেমন দুধের সাথে মিশিয়ে খাওয়া এমনকি কালোজিরার সাথে মিশিয়ে খাওয়া যায় এবং শুধু মুধু হাতের তালুতে নিয়ে খেলে যৌন শক্তি বৃদ্ধিতে অত্যন্ত সহায়ক।

✅ স্মরণ শক্তি বৃদ্ধিতে- এক কাপ রঙ চায়ের সাথে এক চা চামচ কালোজিরার তেল মিশিয়ে দিনে কয়েকবার নিয়মিত খেতে হবে তাহলে ভাল ফলাফল পাওয়া যাবে। এছাড়া কালোজিরা মেধার বিকাশের জন্য কাজ করে দ্বিগুণ হারে।

✅ মাথা ব্যাথা নিরাময়েঃ হঠাৎ মাথা ব্যথা হলে ১/২ চা চামচ কালোজিরার তেল মাথায় ভালোভাবে মালিশ করতে এক চা চামচ কালোজিরার তেল ও সমপরিমাণ মধুসহ দিনে কয়েকবাবার করে খেতে হবে। এটা ২ সপ্তাহ খেলে ভাল হবে। এছাড়া মাথা ব্যথায় কপালের উভয় চিবুকে ও কানের চারিপাশে প্রতিদিন কয়েকবার কালোজিরা তেল মালিশ করলে উপকার পাওয়া যাবে। পরিমাণমতো কালোজিরার গুড়ো। এবং তার অর্ধেক পরিমাণ লবঙ্গ এবং অর্ধেক পরিমাণ মৌরিফুল একসাথে মিশিয়ে ব্যাথার সময় দুধের সাথে সেবন করতে হবে।

✅ বাতের ব্যথা কমায়ঃ সেখানে ভাল করে ধুয়ে পরিষ্কার করে তাতে কালোজিরার তেল মালিশ করতে হবে। এক কাপ রং চায়ের সাথে কালোজিরার তেল ও সমপরিমান মধু দৈনিক ৩বার করে এভাবে ২/৩সপ্তাহ খেতে হবে। তাহলে ভাল ফলাফল পাওয়া যাবে।

✅ উচ্চ রক্তচাপ কমায়ঃ প্রতিদিন সকালে রসুনের দুটি কোষ চিবিয়ে খেয়ে এবং সমস্ত শরীরে কালোজিরার তেল মালিশ করে সূর্যেরতাপে কমপক্ষে আধা ঘন্টা বসে থাকতে হবে এবং এক চা-চামচ কালোজিরার তেল সমপরিমাণ মধুসহ প্রতি সপ্তাহে ২/৩ দিন খেতে হবেে এতে ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ থাকবে। এছাড়া কালোজিরা বা কালোজিরা তেল বহুমুত্র রোগীদের রক্তের শর্করার মাত্রা কমিয়ে দেয় এবং নিম্ন রক্তচাপকে বৃদ্ধি করে উচ্চ রক্তচাপকে হ্রাস করে।

✅নিদ্রাহীনতাঃ মধু মেশানো এক গ্লাস গরম দুধের সাথে এক চামচ কালোজিরা মিশিয়ে ঘুমের পূর্বে সেবন করলে রাত্রিভর ঘুমে বিভোর। অনিদ্রা দূর হয়ে প্রচুর ঘুম আসবে নিদ্রাহীনতার রোগে কালোজিরা এবং মধু খাওয়ার উপকারিতা যেন তুলনাহীন।

✅ অর্শ রোগ নিরাময়ে- এক চা-চামচ মাখন ও সমপরিমাণ তেল তিলের তেল, এক চা-চামচ কালোজিরার তেলসহ প্রতিদিন খালি পেটে ৩/৪ সপ্তাহ খেতে হবে।

✅ লিভার রোগে উপকারিতাঃ সকালে খালি পেটে হালকা গরম পানিতে লেবুর রস ও মধু মিশিয়ে খেলে তা ওজন কমাতে সাহায্য করে। এছাড়াও এতে লিভার পরিষ্কার থাকে।

✅ শরীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে পারে মধু।

✅ মধুতে আছে প্রচুর পরিমাণে মিনারেল, ভিটামিন ও এনজাইম যা শরীরকে বিভিন্ন অসুখ বিসুখ থেকে রক্ষা করে। এছাড়াও প্রতিদিন সকালে এক চামচ মধু খেলে ঠাণ্ডা, কফ, কাশি ইত্যাদি সমস্যা কমে যায়।

✅ হজমের সমস্যা – মধুর মধ্যে থাকা উপাদানগুলি হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। ফলে খাবার খাওয়ার পর বদ হজম, গলা বুক জ্বালা ইত্যাদি সমস্যা দূর হয়।

✅ পাকস্থলীর সুস্থতায় – মধু খেলে পাকস্থলীর কাজ জোরালো হয়। কারণ এটি হজমে সাহায্য করে। এর ব্যবহার হাইড্রোক্রলিক অ্যসিড ক্ষরণ কমিয়ে দেয়। তার ফলে পাকস্থলীর কাজ ভালো হয়।

✅ অরুচি – অনেকেই বেশি খেতে পারেন না। একটু খেয়েই হাঁপিয়ে ওঠেন। বা খাবারে ইচ্ছাটাই থাকে না। অরুচিতে ভোগেন। সে ক্ষেত্রে মধু খেলে খাবরে অরুচি কমে। খাবার চাহিদা বাড়ে।

✅ মধু যে শুধু আপনার কায়িক শক্তি বাড়ায়, তা নয়। ঘুমানোর আগে এক চামচ মধু খেলে তা মস্তিষ্কের কাজ সঠিক ভাবে চালাতে সাহায্য করে। তার ফলে মস্তিষ্কের কার্য ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। তথা বুদ্ধির জোর বাড়ে।

✅ রক্ত উৎপাদনকারী উপকরণ হল আয়রন। আর এই আয়রন প্রচুর পরিমাণে রয়েছে মধুতে। ফলে শরীরে লোহিত রক্ত কণিকা, শ্বেত রক্ত কণিকা-সহ রক্তের ইত্যাদি উপাদানগুলি গড়ে তুলতে সাহায্য করে মধু।

➡️#অর্ডার করতে ক্লিক করুন এই লিংকে- https://grandmasala.com.bd/product-category/honey/https://grandmasala.com.bd/pro…/oilsandfats/black-seed-oil।-কালিজিরা-তেল/

➡️#অর্ডার করার জন্য- সম্পুর্ন নাম, মোবাইল নাম্বার ও সম্পুর্ন ঠিকানাসহ ইনবক্স করুন বা মোবাইলঃ ০১৭১৬৯২২৫৪২, ০১৬১৮৬৪৮৭৭৭,

🏠 সারা বাংলাদেশে হোম ডেলিভারী দেওয়া হয়

✅ Website Visit করুনঃ https://grandmasala.com.bd/Tag#মধু#কালোজিরাতেল#Grandmasalabd#Honey#Oil

Leave a Reply